শিক্ষা বিস্তারে গণমাধ্যমের ভূমিকা রচনা

প্রবন্ধ রচনা শিক্ষা বিস্তারে গণমাধ্যমের ভূমিকা

শিক্ষা বিস্তারে গণমাধ্যমের ভূমিকা

ভূমিকা:

ব্যক্তি, পরিবার, সমাজ সর্বক্ষেত্রে সর্বজনীন শিক্ষার প্রভাব ব্যাপক ও বহুদূরপ্রসারী। প্রাতিষ্ঠানিক পরিমণ্ডলে ও প্রথাগত গ্রন্থ নির্ভরতায় সবসময় শিক্ষা হয় না, মানুষ পারিপার্শ্বিক দাদা ঘটনা ও অভিজ্ঞতা থেকেও শিক্ষা পায়। সেজন্য বলা হয় যে মানুষ যতকাল বাঁচে, ততকালই শেখে। এত গেল ব্যক্তিগত শিক্ষা। গণশিক্ষায় সবচেয়ে বড় ভূমিকা গণমাধ্যমের। কোন ক্ষেত্রে পড়া, কোন ক্ষেত্রে শোনা, কোন ক্ষেত্রে একই সঙ্গে শোনা ও দেখার সাহায্যে শেখা হয়। গণমাধ্যমের সাহায্যে শিক্ষনীয় বিষয় আনন্দ রস আশ্রিত হয়ে হৃদয়স্থ হয়।

গণমাধ্যম:

বিজ্ঞানের প্রসাদপুষ্ট আধুনিক গণমাধ্যমগুলি আবিষ্কারের আগে গণশিক্ষা বা লোকশিক্ষা চলত ছড়া, ব্রতকথা, লোকগাঁথা, পুরাণ স্মৃতিকথা, কথকতা প্রভৃতির মাধ্যমে। আধুনিক গণমাধ্যমের মধ্যে সংবাদপত্র আসে সর্বপ্রথম তারপর একে একে আসে বেতার, চলচ্চিত্র, দূরদর্শন প্রভৃতি।

সংবাদপত্রের ভূমিকা:

সংবাদপত্র দেশ-বিদেশের নানা খবরের ডালি নিয়ে পাঠকের মনের দ্বারে হাজির হয়ে পাঠকের মনের পিপাসা ও নানা কৌতূহল মেটায়। সংবাদপত্র দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক খবর পরিবেশন করে, বিশ্ব রাজনীতির উপর গুরুত্বপূর্ণ প্রতিবেদন প্রকাশ করে। শিক্ষা সাহিত্য সংস্কৃতির আলোচনা, বিভিন্ন সমস্যা ও সমস্যা সমাধানের উপায় বাতলায়। খেলাধুলা, সিনেমা, ইতিহাস, অর্থনীতি, ভূগোল, বিজ্ঞান, দর্শন প্রভৃতি বিষয়ে প্রবন্ধাবলী প্রকাশিত হয়। এছাড়াও আবহাওয়ার খবর, কৃষি শিল্পের উপর আলোচনা ইত্যাদিও ছাপা হয়, বিভিন্ন জিনিসের বাজারদরের গতি প্রকৃতি জানিয়ে দেওয়া হয়। সংবাদপত্র বিশ্ব মানবের বৃহত্তর জীবন যাত্রার নানা দিক সুচারুভাবে তুলে ধরে।

দূরদর্শনের ভূমিকা:

গণশিক্ষায় দূরদর্শনের অবদান অতুলনীয়। নাটক, গান, যাত্রা, কৃষিকথা, শিল্প বিষয়ে নানা আলোচনা, জ্ঞান বিজ্ঞানের খবর ও আলোচনা প্রভৃতি গণশিক্ষার সহায়ক। মনোরঞ্জনমূলক অনুষ্ঠানাদি ছাড়াও দেশ-বিদেশের খবর, সংবাদ সমীক্ষা, কোন না কোন বিষয়ের উপর প্রতিবেদন প্রতিদিনকার অনুষ্ঠানের মধ্যে থাকে। গণমাধ্যম গুলির মধ্যে দূরদর্শনের জনপ্রিয়তা এখন সবচেয়ে বেশি।

অন্যান্য রচনা:

পরিবেশ রক্ষায় ছাত্রছাত্রীদের ভূমিকা

ছাত্রজীবনে খেলাধুলার প্রয়োজনীয়তা

বাংলার উৎসব

বেতারের ভূমিকা:

বর্তমান যুগে বেতার জনপ্রিয়তা হারালেও এক দশক আগে সমাজ জীবনে বেতার ছিল মানুষের নিত্য সঙ্গী। বেতার অনুষ্ঠানের মধ্যে জ্ঞান-বিজ্ঞান, দর্শন, শিক্ষা, সংস্কৃতি, খেলাধুল া, নাট্যাভিনয় বহুবিধ ব্যবস্থা ছিল। কৃষক কুলের অতি জনপ্রিয় অনুষ্ঠান কৃষিকথা, পল্লীমঙ্গল ইত্যাদি। গ্রামীণ সংস্কৃতির অন্তর্ভুক্ত রামায়ণ গান, তরজা গান, কবিগান, কীর্তন, লোকগীতি, বাউল, নানাবিধ লোক বাদ্য বেতারের মাধ্যমে প্রচারিত হয়।

চলচ্চিত্রের ভূমিকা:

চলচ্চিত্র বিজ্ঞানের বিস্ময়কর অবদান ছাড়াও লোকরঞ্জন ও লোকশিক্ষার ক্ষেত্রে তার ভূমিকা উল্লেখযোগ্য। চলচ্চিত্র নানা ভাগে বিভক্ত যেমন কাহিনী চিত্র, ডকুমেন্টারি চিত্র, নিউজ রিল প্রভৃতি। চরিত্র গঠনে, নীতি শিক্ষা দানে, সাহিত্য-বিজ্ঞান-দর্শনের চর্চায়, সাংস্কৃতিক বোধ সৃষ্টিতে চলচ্চিত্রের বিশেষ ভূমিকা আছে।

উপসংহার:

গণশিক্ষা ছাড়া প্রথাগত শিক্ষার ক্ষেত্রেও গণমাধ্যম গুলির বিশেষ ভূমিকা আছে। শিক্ষার উপকরণ হিসেবে এগুলি ব্যবহৃত হয়। এগুলির দ্বারা প্রাপ্ত শিক্ষা প্রথাগত শিক্ষার পরিপূরক। সংকীর্ণ অর্থকরী দিকে নজর না দিয়ে গণমাধ্যমগুলি যাতে শিক্ষার্থীদের শিক্ষনীয় বিষয়ের উপর গুরুত্ব দেয় সেদিকে দৃষ্টি রাখা আবশ্যক।

Subscribe Our YouTube Channel: Click Here

Leave a Comment