শারীরশিক্ষা কাকে বলে?

উত্তর: জে আর শারমন বলেছেন, “শারীরশিক্ষা হলো শিক্ষার সেই অংশ যা শারীরিক ক্রিয়াকৌশলের মাধ্যমে সংগঠিত হয় এবং যার ফলে ব্যক্তির আচরণবিধি গড়ে ওঠে।”

আরও দেখুন: বাসক পাতার উপকারিতা

শারীরশিক্ষার প্রকৃত অর্থ:

শারীর শব্দটি শরীর এর সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত। শারীর শব্দটির সঙ্গে যখন শিক্ষা শব্দটি যোগ করা হয় তখন শারীরশিক্ষা শব্দগুচ্ছটি তৈরি হয়। প্রধানত শারীরশিক্ষার প্রকৃত অর্থ হলো শরীরের জন্য যে শিক্ষা এবং অপর ধারণাটি হলো শরীরের মাধ্যমে যে শিক্ষা লাভ করা যায়।

শারীরশিক্ষার লক্ষ্য কি?

শারীরশিক্ষার লক্ষ ও উদ্দেশ্য হলো-

(১) শিশুর সর্বাঙ্গিণ বিকাশ,
(২) শারীরিক বৃদ্ধি ও উন্নতি,
(৩) বৌদ্ধিক বিকাশ,
(৪) প্রক্ষোভিক গুণাবলির বিকাশ ও তার নিয়ন্ত্রণ,
(৫) সামাজিক সমন্বয়সাধন,
(৬) শারীরিক সক্ষমতা বৃদ্ধি,
(৭) স্নায়ু ও পেশির সমন্বয় সাধন,
(৮) মূল্যবােধের বিকাশ,
(৯) নেতৃত্বদান ও গণতান্ত্রিক চেতনার বিকাশ,
(১০) বিনােদন,
(১১) সৃজনশীলতার প্রকাশ,
(১২) জাতীয়সংহতি রক্ষা করা,
(১৩) আন্তর্জাতিক বােঝাপড়া,
(১৪) শারীরিক প্রতিবন্ধকতা, বার্ধক্য, রােগপ্রতিরােধ ও নিরাময়।

আরও দেখুন:

বিজ্ঞান প্রদর্শনী বিষয়ে প্রতিবেদন রচনা

রক্তদান শিবির প্রতিবেদন রচনা

Subscribe Our YouTube Channel: Click Here

Leave a Comment