তরমুজের উপকারিতা ও অপকারিতা

তরমুজের উপকারিতা:

১. শরীরে জলের ঘাটতি মেটায়:

তরমুজ ফলটির ইংরেজি নাম Watermelon অর্থাৎ নামের মধ্যেই জল (Water) শব্দটি রয়েছে। এর থেকেই বোঝা যায় এই ফলটি প্রচুর পরিমাণ জলে সমৃদ্ধ। জল সমৃদ্ধ এই ফলটি রক্তসঞ্চালন, ত্বকের স্বাস্থ্য এবং হজমে সাহায্য করে, শরীরের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে এবং শরীর থেকে বর্জ্য অপসারণেও সহায়তা করে।

২. গুরুত্বপূর্ণ পুষ্টি সরবরাহ:

প্রতি কাপ তরমুজে 11 গ্রাম কার্বোহাইড্রেট আছে। এছাড়াও অল্প পরিমাণে পটাসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, স্বাস্থ্য-প্রতিরক্ষামূলক অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, প্রাকৃতিক মিষ্টি, এবং ভিটামিন A , B, C রয়েছে। এগুলি শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে এবং শরীর সুস্থ থাকে।

৩. রক্তচাপ কমায়:

তরমুজে পাওয়া একটি প্রাকৃতিক রাসায়নিক হল এল-সিট্রুলাইন (L-citrulline)। এটা ধমনীর কার্যকারিতা বাড়াতে এবং রক্তনালীগুলিকে শিথিল করতে সাহায্য করে। এর ফলে রক্তচাপ কমে।

আরও পড়ুন: শসা খাওয়ার উপকারিতা

৪. পেশীর ব্যথা কমায়:

গবেষণায় দেখা গেছে যে, ব্যায়ামের এক ঘণ্টা আগে যারা 16 আউন্স তরমুজের রস পান করেন, তাদের পেশীতে ব্যথা কম হয়। অন্য একটি গবেষণায় প্রমাণিত হয়েছে, ক্রীড়াবিদরা যারা হাফ-ম্যারাথন দৌড়ের দুই ঘন্টা আগে 16 আউন্স তরমুজের রস পান করেন তারা 72 ঘন্টা পর্যন্ত পেশীতে কম অস্বস্তি অনুভব করেন।

৫. ওজন কমায়:

প্রক্রিয়াজাত চিনিযুক্ত খাবারের পরিবর্তে তরমুজ খেলে ওজন নিয়ন্ত্রণে সহায়ক হয়। তরমুজ একটি কম ক্যালোরিযুক্ত খাবার হওয়ায় ওজন নিয়ন্ত্রণ তরমুজের ভূমিকা অনস্বীকার্য।

৬. হজম ক্ষমতা বাড়ায়:

তরমুজের মধ্যে প্রিবায়োটিকস উপস্থিত থাকে। এটা ফাইবারের একটি রূপ যা বৃহৎ অন্ত্রে উপকারী ব্যাকটেরিয়া উৎপাদন এবং তার কার্যকলাপকে নিয়ন্ত্রণ করে খাদ্য হজমে সহায়তা করে। প্রিবায়োটিকগুলি উন্নত রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে তোলে, শরীরের ভিতরের প্রদাহ হ্রাস করে।

৭. ত্বকের সুরক্ষা:

তরমুজে থাকা ভিটামিন A এবং C স্বাস্থ্যকর ত্বক বজায় রাখে এবং তরমুজের লাইকোপিন ক্ষতিকারক অতিবেগুনি রশ্মি থেকে দেহকে সুরক্ষা দেয়।

বিশেষ দ্রষ্টব্য:
এখানে দেওয়া তথ্য শুধুমাত্র সাধারণ জ্ঞানের জন্য। এটি কোনো পেশাদার চিকিৎসকের পরামর্শের বিকল্প নয়। কোনো কিছু গ্রহণ করার আগে অবশ্যই আপনার চিকিৎসকের পরামর্শ নেবেন। অন্যথায় আমরা কোনো মতেই দায়ী থাকবো না।

আরও পড়ুন: লেবু জল খাওয়ার উপকারিতা

তরমুজের অপকারিতা:

১. তরমুজ লাইকোপেনে উপাদান দ্বারা সমৃদ্ধ। তাই অতিরিক্ত তরমুজ খেলে ফোলাভাব, ডায়রিয়া, বমি, বদহজম, অম্বল এবং গ্যাস হতে পারে। বয়স্ক ব্যক্তিদের পাচনতন্ত্র দুর্বল হওয়ায় তাদের ক্ষেত্রে এই লক্ষণগুলি আরও তীব্র হতে পারে।

২. তরমুজে উচ্চ মাত্রায় পটাশিয়াম থাকে। প্রচুর পরিমাণে পটাসিয়াম সমৃদ্ধ খাবার গ্রহণ করলে কার্ডিওভাসকুলার সমস্যা হতে পারে। এর ফলে, নাড়ি দুর্বলতা, অনিয়মিত হৃদস্পন্দন, হার্ট অ্যাটাক ইত্যাদি ঘটতে পারে।

৩. প্রাকৃতিক চিনিতে পূর্ণ তরমুজ শরীরে চিনির মাত্রা বাড়াতে পারে। তাই ডায়াবেটিস রোগীদের তরমুজ খাওয়া এড়িয়ে চলা উচিত।

৪. অতিরিক্ত তরমুজ খেলে শরীরের রক্তচাপ কমে যেতে পারে।

৫. তরমুজ কিছু মানুষের মধ্যে অ্যালার্জির প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করতে পারে। ফলে ফুসকুড়ি, অ্যানাফিল্যাক্সিসি এবং মুখের ফোলা দেখা দিতে পারে। এছাড়াও, জিহ্বায় চুলকানি, মাথাব্যথা ও মাথা ঘোরা হতে পারে।

আরও পড়ুন: নিম পাতার উপকারিতা

তরমুজের বীজের উপকারিতা:

তরমুজের বীজ-
১. রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রেখে হৃদপিন্ডের স্বাস্থ্য ভালো রাখতে সহায়তা করে।
২. রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়।
৩. হজম ক্ষমতা বৃদ্ধি করে।
৪. ত্বক ও চুল ভালো রাখে।
৫. তরমুজের বীজে রয়েছে ক্যালসিয়াম, যা হাড় সুস্থ রাখতে সহায়তা করে।

তরমুজের বীজ খাওয়ার নিয়ম:

তরমুজের বীজ গুড়া করে তা স্যালাড বা অন্যান্য খাবারের সঙ্গে মিশিয়ে খাওয়া যেতে পারে। রান্না করেও তরমুজের বীজ খাওয়া যেতে পারে। তরমুজের বীজ রোদে শুকিয়ে রেখে পরে বেইক করে সামান্য লবণ বা অন্যান্য উপাদান মিশিয়ে খাওয়া যেতে পারে।

আরও পড়ুন: তুলসী পাতার উপকারিতা

FAQs: Frequently Asked Questions

প্রশ্ন: তরমুজ ইংরেজি কি?

উত্তর: তরমুজ ইংরেজি Watermelon

প্রশ্ন: তরমুজ কোন মাটিতে ভালো হয়?

উত্তর: বেলে মাটি বা বালিযুক্ত দোআঁশ মাটিতে তরমুজ খুব ভালো চাষ হয়।

প্রশ্ন: পশ্চিমবঙ্গে সবচেয়ে বেশি তরমুজ উৎপাদিত হয় কোন জেলায়?

উত্তর: দক্ষিণ ২৪ পরগণা।

আরও পড়ুন: থানকুনি পাতার উপকারিতা

প্রশ্ন: খালি পেটে তরমুজ খেলে কি হয়?

উত্তর: যদি কেউ সকাল বেলা তরমুজ খায় তাহলে তার শরীরের ডিহাইড্রেশন লেভেল অনেক কমে যাবে। যার ফলে শরীরে তৃষ্ণার্থ ভাবটা কম লাগবে। তাছাড়া সকাল বেলা খালি পেটে তরমুজ খেলে শরীরের লিভার থেকে শুরু করে নানা ধরনের উপকার পাওয় যায়।

বিশেষ দ্রষ্টব্য:
এখানে দেওয়া তথ্য শুধুমাত্র সাধারণ জ্ঞানের জন্য। এটি কোনো পেশাদার চিকিৎসকের পরামর্শের বিকল্প নয়। কোনো কিছু গ্রহণ করার আগে অবশ্যই আপনার চিকিৎসকের পরামর্শ নেবেন। অন্যথায় আমরা কোনো মতেই দায়ী থাকবো না।

👉 স্বাস্থই সম্পদ: Click Here

আরও পড়ুন:

বয়স বাড়লে চুল সাদা হয়ে যায় কেন?

মাটির কলসির জল ঠান্ডা থাকে কেন?

👉 Subscribe Our YouTube Channel: Click Here

Leave a Comment

CLOSE

You cannot copy content of this page