আমন্ড বাদাম খাওয়ার উপকারিতা

জেনে নিন আমন্ড বাদাম খাওয়ার আশ্চর্যরকমের ৫ টি স্বাস্থ্য উপকারিতা

বর্তমানে আমন্ড বাদাম সর্বাধিক উৎপাদিত হয় আমেরিকার ক্যালিফোর্নিয়াতে। কিন্তু গোটা বিশ্বের মানুষ আজ আমন্ড বাদাম খাচ্ছেন। এর পিছনে রয়েছে আমন্ড বাদামের আশ্চর্য রকম গুণাবলী। আপনার ডায়েট চার্টে গোটা কয়েক আমন্ড বাদাম রাখলে এর উপকারিতা আপনিও টের পাবেন।

আমন্ড বাদাম খাওয়ার স্বাস্থ্য উপকারিতা:

আমন্ড বাদাম বিভিন্ন পুষ্টিগুণে সমৃদ্ধ। আমাদের হাড় থেকে শুরু করে সমগ্র অঙ্গকে শক্তিশালী করতে আমন্ড বাদাম খুব উপকারী। আসুন জেনে নেই আমন্ড বাদামের কিছু উপকারিতা সম্পর্কে।

১. আমন্ড বাদাম শরীরের পক্ষে ক্ষতিকারক লো-ডেনসিটি লাইপোপ্রোটিন কমায় এবং উপকারী হাই-ডেনসিটি লাইপোপ্রোটিন নামক কোলেস্টেরলের মাত্রা বাড়ায়। এছাড়াও আমন্ডের অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও অ্যান্টি ইনফ্লেমেটরি বৈশিষ্ট্য আছে যা হৃদরোগের সম্ভাবনা কমায়।

আরও পড়ুন: তুলসী পাতার উপকারিতা

২. আমন্ড বাদাম সিস্টোলিক রক্তচাপ কমায়। ফলে হৃদরোগের ঝুঁকি কমে।

৩. আমন্ড বাদাম ম্যাগনেসিয়াম ও ভিটামিন-E সমৃদ্ধ। তাই আমন্ড বাদামের একটি দানা যথেষ্ট পুষ্টিকর।

৪. আমন্ড বাদামে ক্যালসিয়াম ও ফসফরাস রয়েছে যা হাড়কে মজবুত করে।

৫. আমন্ড বাদাম একটি উচ্চ ক্যালোরিযুক্ত খাবার। তা সত্ত্বেও এটি নিয়ন্ত্রিত পরিমাণে গ্রহণ করলে ওজন বৃদ্ধি ও মোটা হওয়ার সম্ভাবনা কমে।

এছাড়াও ব্লাড সুগার নিয়ন্ত্রণে, শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে আমন্ড বাদাম ভীষণ উপকারী।

আরও পড়ুন: পেটের মেদ কমানোর উপায়

আমন্ড বাদাম খাওয়ার নিয়ম:

আমন্ড বাদামের উপকারিতা পাওয়ার জন্য নিচের নিয়মে এটি গ্রহণ করতে হবে।
১. সকালে বা বিকেলে জলখাবারের সাথে ৫ থেকে ৬ টি আমন্ড বাদাম খেতে পারেন।
২. ভালো স্বাদ ও গন্ধের জন্য আমন্ড বাদাম ভেজে খেতে পারেন।
৩. সন্ধ্যেবেলায় কিছু আমন্ড জলে ভিজিয়ে রাখুন। তারপর ওগুলো সকালের খাবারের সাথে খেতে পারেন। ভেজা আমন্ডের দারুন গুনাগুন রয়েছে।

FAQs: Frequently Asked Questions

১. আমন্ড বাদাম কিভাবে খায়?

উত্তর: আমল বাদাম কাঁচা বা ভেজে খেতে পারেন। তবে কয়েক ঘণ্টা জলে ভিজে রেখে খেলে বেশি উপকার পাবেন

২. আমন্ড বাদাম খাওয়ার উপকারিতা কি?

উত্তর: আমন্ড বাদাম শরীরের কোলেস্টেরল, রক্তচাপ ও ব্লাড সুগার নিয়ন্ত্রণ করে, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়, ওজন নিয়ন্ত্রণ করে, হাঁড় মজবুত করে।

৩. আমন্ড বাদামে কোন ভিটামিন আছে?

উত্তর: আমন্ড বাদামে ভিটামিন-E আছে।

৪. আমন্ড বাদাম কখন খাওয়া ভালো?

উত্তর: সন্ধ্যেবেলায় আমন্ড বাদাম ভিজিয়ে রেখে সকালে প্রাতরাশের সাথে সেগুলো খেলে বেশি উপকার পাবেন।

Disclaimer:
এখানে দেওয়া তথ্য শুধুমাত্র সাধারণ জ্ঞানের জন্য। এটি কোনো পেশাদার চিকিৎসকের পরামর্শের বিকল্প নয়। কোনো কিছু গ্রহণ করার আগে অবশ্যই আপনার চিকিৎসকের পরামর্শ নেবেন। অন্যথায় আমরা কোনো মতেই দায়ী থাকবো না।

👉 স্বাস্থই সম্পদ: Click Here

আরও পড়ুন: আমাশয় রোগের ঘরোয়া চিকিৎসা

👉 Subscribe Our YouTube Channel: Click Here

Leave a Comment

CLOSE